Category Archives: Current News

Invitation card Pre-Budget SEMINAR 2017

Download (PDF, 98KB)

ফিরে দেখা

Download (PDF, 3.97MB)

নাগরিক বাজেট ২০১৫-২০১৬

Download (PDF, 2.35MB)

বাজেট ২০১৬-২০১৭ পর্যবেক্ষণ ও মতামত

ENTER

“Promoting Women Entrepreneurship Through Innovative Use of ICT Tools”, Dhaka

dhaka

Computer Training Center, Shiroil, Rajshahi.

DSC_0029

Training Workshop On “Promoting Women Entrepreneurship Through Innovative Use of ICT Tools”, 2015

Women_ICT_Budget-Policy_Asia-Found_Selected-(30)

Response to the Open Working Group’s “Zero Draft rev 1” on Sustainable Development Goals

The International Budget Partnership response to the Open Working Group’s “Zero Draft rev 1” on Sustainable Development Goals

The International Budget Partnership (IBP)collaborates with civil society around the world to ensure that scarce public resources are used to reduce poverty and promote effective governance. Our experience, as well as a growing body of evidence, shows that when citizens have access to information and opportunities to participate in the policy and budget process they can help to improve service delivery and strengthen oversight, resulting in substantive improvements in poverty and development outcomes.

The IBP andits civil society partners from over 50 countries congratulate the United Nations’ Open Working Group (OWG) on the latest draft of the Sustainable Development Goals (SDGs).  We endorse the recommended goals and targets in the revised zero draft that emphasize greater transparency, public participation (16.4), and accountability (16.9) in development efforts, in particular target 16.7 that seeks to “promote free and easy access to information, freedom of expression, association, and peaceful assembly.”

We are, however, extremely concerned about the removal of the specific reference to access to information on public financial management, procurement, and national development plans from the list of enumerated targets in focus area 16. The previous version of the zero draft included the following specific target: “by 2020 improve public access to information and government data, including on public finance management, public procurement and on the implementation of national development plans.” Unfortunately, this text no longer appears in the draft issued on 30 June 2014.

This memo sets out the basis of our concern and proposes two alternative solutions to address the issue.

What is at stake?

Defining the next generation of international development goals is an incredible opportunity to harness the energy and leverage the political will of governments, civil society, and other development actors to build on the successes of the Millennium Development Goals (MDGs), and address some of their shortcomings. To achieve the SDGs governments will need to raise and spend public funds in a more equitable and effective manner. To support this process, the public and other stakeholders – domestic and international – will need better access to detailed and timely information on government plans, actual investments, and results. Without ensuring that this information is available at the start and during the implementation of the SDGs, it will be almost impossible to monitor progress and hold governments accountable for reaching their targets.

This is a major problem with the current MDGs. Many countries that signed the MDG declaration, including those with access to information legislation in place, did not publish sufficient information on their MDG-related investments and outcomes. To this day we do not know what investments these countries made for which MDGs, and with what results, nor can we accurately establish the total investment and results for any one or all MDGs. This lack of information compromised the ability of domestic and international stakeholders to monitor and hold governments to account for their MDG commitments, and undermined our capacity to learn about what strategies worked or did not work. If these practices continue, they will threaten the success of the next generation of development goals.

We urge you to consider this lesson in order to ensure that the SDG framework fully supports the potential for success. The OWG document proposes that a general target requiring an improvement in public access to information will be sufficient to ensure accountable governance. While a similar target is an essential in creating an enabling environment for holding governments accountable, it is far too general to ensure that they are able in practice to monitor what their governments are doing to improve development outcomes. The risk of having countries achieve this target by improving access to some information five or ten years from now, while impeding regular monitoring of their performance in the meantime, is too high for both domestic and international stakeholders, and could greatly undermine the SDG enterprise and spirit.

What are the solutions?

In order to effectively monitor – and thereby improve – government performance, timely and detailed information on government plans, investments, and outcomes will be required from the very beginning of the process. A general access to information requirement will inevitably lead to uneven and staggered access to information across countries. Instead, we think an international solution that builds on existing standards for reporting of public finances provides a much more effective way to ensure that the specific information required for monitoring and learning is available from the start of the process in 2015.  There is broad agreement among international financial institutions, governments, donors and civil society about what information governments should provide to enable accountability for development commitments. Much of this information is already collected by governments, though it is often not shared publicly. Moreover, with adequate technical support governments can learn to collect this information relatively quickly.

Building on these international standards, we offer two alternative options to the OWG to promote adequate transparency on public finances and development outcomes. The first is for the OWG to reinstate the need to provide information on plans, financing, procurement and results in its list of enumerated targets in focus area 16. This will ensure that all governments that sign on to the SDGs also commit to providing public information that will enable both monitoring and learning. Further elaboration of the specific data required can be itemized in the indicators associated with this focus area.

The second, which could be even more effective, is for the OWG to consider the inclusion of specific cross-cutting transparency targets against all the goals included in the post-2015 framework. This would require all governments to report publicly and regularly on spending, outputs, and results achieved against each SDG.

For example, if the goal to achieve universal primary education were to be confirmed, governments would then have to produce and publish detailed information on planned and actual spending devoted to the primary education subsector (e.g., teacher salaries, teacher training, school materials, infrastructure for primary education, and so on), on activities and outputs (e.g., teachers recruited and trained, delivery of school material, primary schools built, and so on), and on results achieved (e.g., enrollment levels, test results, literacy levels, and so on).

Of course, not all governments have the same capacity to collect and publish this kind of data. Such a target would be designed to ensure that all governments provide at least the basic information required to measure inputs and outcomes. Governments with greater capacity could be encouraged to provide data that surpasses this minimum threshold. In order to minimize additional reporting burden on countries, the above data could be provided as part of the government’s ongoing policy and budget cycle.

Ideally, and where possible, these reporting mechanisms should include resources obtained through development assistance. In any case, donor agencies and other development actors should publish such information separately and provide it to recipient governments in formats that are compatible with country systems.

We hope that you will recognize the importance of the issues at stake, both for country-level accountability and for international monitoring and learning efforts. We thank you for your consideration and urge you to contact us if we can answer any additional questions.

Sincerely,

International Budget Partnership

Organizations and Individuals Calling for the Inclusion of a Target on Transparency in Public Finance Management and Procurement in Sustainable Development Goals

Afghanistan: Integrity Watch Afghanistan

Algeria: Association Nationale de Finances Publiques

Armenia:Transparency International Anti-corruption Center NGO

Azerbaijan: Public Finance Monitoring Center

Bangladesh: Centre on Budget and Policy, University of Dhaka

Botswana: Botswana Institute for Development Policy Analysis

Brazil: Instituto de EstudosSócioeconômicos

Bulgaria: Industry Watch Group

Burkina Faso: Centre Pour La GouvernanceDémocratique

Cambodia: The NGO Forum on Cambodia

Cameroon: Budget Information Centre

Colombia: Grupo de Investigación de Ciudadanía y FinanzasPublicas

Côte d’Ivoire: Social Justice

Dominican Republic: FundaciónSolidaridad

Ecuador: Grupo FARO

Egypt: Egyptian Center for Economic and Social Rights

Equatorial Guinea: SensacionJovendelFuturo

France: Association pour la FondationInternationale de Finances

Ghana: SEND-Ghana

Guatemala: El Centro Internacional para Investigaciones en Derechos Humanos

Hungary: Fiscal Responsibility Institute

India: National Campaign for Dalit Human Rights

India: Centre for Budget and Governance Accountability

Indonesia: Indonesian Forum for Budget Transparency

Iraq: Iraq Institute for Economic Reform

Kazakhstan: Sange Research Center

Liberia: Actions for Genuine Democratic Alternatives

Malawi: Malawi Economic Justice Network

Mexico: Fundar, Centro de Analisis e Investigacion, A.C.

Myanmar: Spectrum

Namibia: Institute for Public Policy Research

New Zealand: Jonathan Dunn

Niger: Alternative EspacesCitoyens

Nigeria: Civil Resource Development and Documentation Centre

Pakistan: Omar Asghar Khan Development Foundation

Peru: CAD Ciudadanos al Día
Philippines: Philippines Center for Investigative Journalism

Poland: University of Krakov

Sao Tome e Principe: Webeto.org

Senegal: Grouped’Etude, de Recherche et d’Action pour le Developpement

Sierra Leone: Budget Advocacy Network

Slovakia: MESA 10

South Africa: Public Service Accountability Monitor
South Korea: Korea Institute of Public Finance

Sri Lanka: Verité Research

Sweden: Accountability and Transparency for Human Rights

Tajikistan: Open Society Institute—Assistance Foundation in Tajikistan

Tanzania: HakiElimu

Tanzania: Policy Forum

Trinidad and Tobago: University of West Indies

Tunisia: Union GénéraleTunisienne du Travail

United Kingdom: Joachim Wehner, London School of Economics

Venezuela: Transparencia Venezuela

Post Budget Review Session: Issues of Disaster Management & Relief

ত্রান সহায়তার পাশাপাশি সমান জরুরী দুর্যোগ মোকাবেলা ও ব্যবস্থাপনায় সক্ষমতা বৃদ্ধি”

প্রেস বিজ্ঞপ্তি, ১৮ জুন, ২০১৪; ঢাকাঃ ত্রান সহায়তার পাশাপাশি দুর্যোগ মোকাবেলা, ঝুঁকি নিরসন ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় সক্ষম প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামো ও জনদক্ষতা বৃদ্ধি করা আবশ্যক।– গত ১৮ জুন, ২০১৪ তারিখে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে আয়োজিত দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত বাজেট বরাদ্দ বিষয়ে এক বাজেট-উত্তর আলোচনা সভায় বক্তারা এ মতামত তুলে ধরেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষনা সংস্থা সেন্টার অন বাজেট এন্ড পলিসি এবং দুর্যোগ বিজ্ঞান ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল; বিশেষ অতিথি ছিলেন অর্থ মন্ত্রনালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান মাননীয় সংসদ সদস্য ড. মুহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক।

সভায় স্বাগত বক্তব্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক একটি দুর্যোগ প্রবন দেশ হিসেবে টেকসই উন্নয়ন তথা অর্থনীতিক উন্নয়নে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে যথাযথ অর্থায়নের মাধ্যমে প্রক্রিয়াগত ও অবকাঠামোগত উন্নতির প্রয়োজনীয়তা উল্লেখ করেন।সেই সাথে তিনি দক্ষিন এশীয় অঞ্চলের প্রায় সমজাতীয় দুর্যোগ ঝুঁকি সম্পন্ন দেশ সমূহ কে সংগঠিত করে ভূ-আঞ্চলিক পর্যায়ে দুর্যগ ব্যবস্থাপনায় যৌথ সমন্বিত কৌশল প্রনয়নে যথাযথ উদ্যোগ গ্রহনের আহবান জানান।

সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সেন্টার অন বাজেট এন্ড পলিসির ডিরেক্টর প্রফেসর ড এম আবু ইউসুফ ও দুর্যোগ বিজ্ঞান ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর আ স ম মাকসুদ কামাল। তাদের উপস্থাপনায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা খাতে বিগত পাঁচ অর্থবছরে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা খাতে বাজেট বরাদ্দ বিশ্লেষন করা হয়। সেই সাথে জলবায়ু অভিঘাত মোকাবেলায় গৃহীত বিভিন্ন প্রকল্পে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা খাত কে কিভাবে সমন্বয় করা হয় তাদের বক্তব্যে সে বিষয়টিও উঠে আসে।প্রফেসর আবু ইউসুফ সার্কভূক্ত দেশ সমূহের মাঝে নেপাল ও শ্রীলংকার সাথে তুলনা করে দেখান যে বাংলাদেশের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা খাতে অর্থায়ন প্রক্রিয়াটি চাহিদা ও গুরুত্বের তুলনায় অপ্রতুল এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত জাতীয় নীতি ও কৌশল্গত লক্ষ্যসমূহের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়।তিনি বাজেটের অন্তত ৫ শতাংশ ও জিডিপির অন্তত এক শতাংশ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা খাতে ব্যয় করার আহবান জানান। প্রফেসর মাক্’সুদ কামাল দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কাঠামোর উন্নয়নকল্পে করনীয় কৌশল হিসেবে আঞ্চলিক দুর্যোগ বাজেট বরাদ্দ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা খাতে গবেষনা বৃদ্ধি, ঝুঁকি পূর্ন জনগোষ্ঠীর কাছে সহায়তা প্রদান ব্যবস্থা আরো দ্রুততর করন, যোগাযোগ কাঠামোর উন্নয়ন, প্রশিক্ষন এর সুযোগ সৃষ্টি, আশ্রয়কেন্দ্র নির্মান, জরুরী সহায়তা প্রদানের অবকাঠামো উন্নয়ন, নারী বান্ধব দুর্যোগ মোকাবেলা কৌশল প্রনয়ন এবং সর্বোপরি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন প্রয়োগ এর সুপারিশ করেন।

সভায় আলোচক হিসেবে উপস্থিত দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রধান জনাব মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াজেদ, সিডিএমপি প্রকল্পের পরিচালক মোহাম্মদ আব্দুল কাইয়ুম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড তৈয়বুর রহমান ও ড কাজী মারুফুল ইসলাম উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা ও দাতা দেশ সমূহের যৌথ উদ্যোগে কোন প্রকল্প গ্রহনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের জনগনের প্রয়োজন অনুযায়ী, বাংলাদেশের পরিবেশ উপযোগী পদক্ষেপ গ্রহন ও সকল পর্যায়ে জনগনের স্বার্থ চূড়ান্ত ভাবে সংরক্ষন করার কথা বলেন।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি ড মুহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক সম্পদের অপ্রতুলতা থাকলেও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা খাতে বাংলাদেশ সরকার যে অত্যন্ত আন্তরিক ভাবে টেকসই উন্নয়ন সাধনের চেষ্টা করছে এবং আর্থ-সামাজিক, ভৌগলিক অবস্থান বিবেচনায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রনালয়,খাদ্য মন্ত্রনালয়, সামাজিক নিরাপত্তা বাজেট ইত্যাদিতে খাতেও দুর্যোগ ঝুঁকি নিরসন ও দুর্যোগ আক্রান্ত জনগনের পুনর্বাসন কে সরকারের উন্নয়ন পরিকল্পনার মৌলিক নীতির এক্তি হিসেবে রাখা হয়েছে ব্’লে জানান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল এ পর্যন্ত দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় সরকারে এ যাবৎ অর্জিত সাফল্য এবং কোন কোন ক্ষেত্রে সীমাবদ্ধতা রয়েছে তা সংক্ষেপে তুলে ধরেন। তিনি পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা, জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনা ও সমন্বিত দুর্যোগ মোকাবেলা প্রকল্পের সাথে সমন্বয় করে দুর্যোগজনিত ঝুঁকি ও বিপর্যয় মোকাবেলার কৌশল ও করনীয় সমূহের সমন্বয় সাধন করার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন আছে বলে জানান এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় সর্বস্তরের জনগনের সচেতনতা ও অংশগ্রহন্’মূলক ভূমিকা রাখার আহবান জানান।

সভার চেয়ারম্যান প্রফেসর আ স ম মাকসুদ কামাল সভায় আগত সকল অতিথিকে ধন্যবাদ জানিয়ে যে উদ্দেশ্যে এই সভা আয়োজন করা হয়েছে নীতি নির্ধারনী পর্যায়ে তা প্রতিফলিত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

 

প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আবু ইউসুফ

পরিচালক, সেন্টার অন বাজেট এন্ড পলিসি ও

প্রফেসর, উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগ,

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

 

প্রফেসর আ স ম মাকসুদ কামাল

চেয়ারম্যান, দুর্যোগ বিজ্ঞান ও ব্যবস্থাপনা বিভাগ;

ডীন, আর্থ এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্সেস;

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

 

‘জাতীয় বাজটে ২০১৪-১৫ : খাদ্য নরিাপত্তা এবং ক্ষুদ্র ও মাঝারি কৃষক এর র্অথনতৈকি উন্নয়ন’

Centre on Budget and Policy_18 May 2014